13.2 C
New York

স্বাধীনতা দিবসে ছাত্রলীগ সভাপতির ওপর হামলা, দুই নেতা বহিষ্কার

Published:

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের কর্মসূচি পালনের সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সোলায়মান হোসেন হাসিবসহ চার ছাত্রলীগ নেতার ওপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত দুই ছাত্রলীগ নেতাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার (২৭ মার্চ) জেলা ও উপজেলা শাখা ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, স্বাধীনতা দিবসে ফুল দিয়ে যাওয়ার পথে পূর্বধলা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সোলায়মান হোসেন হাসিব, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রনি বেপারী, দপ্তর সম্পাদক সালমান হাসান, ছাত্রলীগ নেতা রুহুল আমীনসহ নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালান জেলার পূর্বধলা সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি হৃদয় খান নাঈম ও উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জাহিদুল আলম প্রভাত এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যের এপিএস আল আমিন হোসেনের ছেলে সাব্বির আহমেদের নেতৃত্বে ২০-২৫ জন ছাত্রলীগ কর্মী। তবে ছাত্রলীগ নেতা সাব্বির আহমেদ হামলার ঘটনায় জড়িত নন বলে দাবী করেন।

এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে হৃদয় খান নাঈম ও জাহিদুল আলম প্রভাত নামে দুই ছাত্রলীগ নেতাকে পদ থেকে বুধবার বহিষ্কার করে জেলা ছাত্রলীগ।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল আওয়াল শাওন ও সাধারণ সম্পাদক সোবায়েল আহম্মেদ খান স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। বহিষ্কৃত হৃদয় খান নাঈম পূর্বধলা সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও জাহিদুল আলম প্রভাত পূর্বধলা উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল আউয়াল শাওন ও সাধারণ সম্পাদক সোবায়েল আহমেদ খান বলেন, ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের পরিপন্থী কাজে জড়িত থাকায় পূর্বধলা সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি হৃদয় খান নাঈম ও উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জাহিদুল আলম প্রভাতকে পদ থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া কেন তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তা তিন কর্মদিবসের মধ্যে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে লিখিত বক্তব্য প্রদান করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এইচ এম কামাল/এফএ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img