16.9 C
New York

লাগেজে বিস্ফোরক থাকার দাবি, রুশ বিমানবন্দর থেকে নারী আটক

Published:

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর শেরেমেতিয়েভো বিমানবন্দর থেকে এক নারীকে আটক করা হয়েছে। ওই নারী দাবি করেছিলেন, তার সঙ্গে থাকা লাগেজের মধ্যে বোমা রয়েছে। কিন্তু পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে তার লাগেজে কোনো ধরনের বিস্ফোরক পদার্থ পায়নি।

বিমানবন্দরের প্রেস সার্ভিসের মতে, রোববার (২৪ মার্চ) ওই নারী আর্মেনিয়ার রাজধানী ইয়েরেভানে যাওয়ার উদ্দেশ্যে প্লেনে ওঠেন। একপর্যায়ে হঠাৎ করেই তিনি বলে ওঠেন, আমার লাগেজে একটি বিস্ফোরক ডিভাইস রয়েছে।

তার এমন কথা শুনে প্লেনের পাইলট বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে রুশ নিরাপত্তা পরিষেবা এবং পুলিশকে জানান। পুলিশ এসে ওই নারীসহ সব যাত্রীর পুঙ্খানুপুঙ্খ তল্লাশি চালায়। কিন্তু তাদের কারও লাগেজ থেকেই কোনো বিস্ফোরক বা নিষিদ্ধ পদার্থ পাওয়া যায়নি। তবে ওই নারীকে রুশ আইনের আওতায় আসা হবে বলে জানিয়েছে ক্রেমলিন।

এদিকে, আশ্চর্যজনকভাবে একই দিনে ইয়েরেভানের নর-নর্ক নামক পুলিশ স্টেশনে হামলা চালায় তিন সশস্ত্র ব্যক্তি। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তিনজনের মধ্যে দুজন থানার ভেতরে হামলা চালান ও তৃতীয় ব্যক্তি এখনো গ্রেনেড নিয়ে থানার বাইরে অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা তাস জানিয়েছে, আর্মেনিয়ান পুলিশ বাহিনীর প্রধান পুলিশ স্টেশনের বাইরে থাকা তৃতীয় হামলাকারীর সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছেন।

ইন্টারফ্যাক্স নিউজ এজেন্সি স্থানীয় গণমাধ্যমের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে, হামলাকারীরা কমব্যাট ব্রাদারহুড সংগঠনের সদস্য হতে পারেন। রোববার দিনের শুরুতে এই সংগঠনের প্রায় ৫০ জন সদস্যকে আটক করে আর্মেনিয়ান পুলিশ। তবে স্পুটনিক আর্মেনিয়া জানিয়েছে, কমব্যাট ব্রাদারহুড এই হামলায় জড়িত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেছে।

সূত্র: তাস

এসএএইচ

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img