11.2 C
New York

লন্ডন এক্সপ্রেসের ভলভো বাসে আগুন নাশকতা কি না খতিয়ে দেখছে পুলিশ

Published:

রাজধানীর ডেমরায় গ্যারেজে দাঁড় করিয়ে রাখা লন্ডন এক্সপ্রেসের ১৪টি ভলভো বাস আগুনে পুড়ে গেছে। এটি নিছক দুর্ঘটনা নাকি নাশকতা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

পুলিশ বলছে, দুর্ঘটনা হলে এক থেকে দুটি বাস পুড়তো, কিন্তু সারিবদ্ধভাবে থাকা একসঙ্গে ১৪টি দামি ভলভো বাস কীভাবে পুড়লো!

সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে ঢাকা ডিএমপির ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. ইকবাল হোসেন এসব কথা জানান।

তিনি বলেন, রাজধানীর ডেমরায় ধার্মিকপাড়ায় গ্যারেজে আওয়াজের পর দাঁড়িয়ে থাকা বাসে আগুন ধরে যায়। মুহূর্তেই চারদিকে আগুন ছড়িয়ে একে একে ১৪টি বাস পুড়ে যায়।

প্রাথমিকভাবে যতটুকু জানা গেছে, ওই গ্যারেজে দাঁড়িয়ে থাকা একটি বাসে আগুনের পর ১৪ বাসে আগুন লাগে।

ঘটনাটি নাশকতা কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে ওয়ারী বিভাগের ডিসি ইকবাল হোসেন বলেন, দুর্ঘটনা নাকি নাশকতা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। পুলিশ এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে। তবে দুর্ঘটনা ঘটলে একটি বা দুটি অথবা ছয়টি বাসে আগুন লাগতো। তাই বলে একেবারে সারিবদ্ধভাবে থাকা ১৪টি বাস পুড়ে যায় কীভাবে।

এর আগে, সোমবার (১ এপ্রিল) রাত ৮টা ৫০ মিনিটে আগুন লাগার খবর পায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স। এরপর ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট ৯টা ৪৮ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার রাশেদ দিন খালিদ জাগো নিউজকে জানান, রাজধানীর ডেমরার কোনাপাড়ার ধার্মিকপাড়ায় গ্যারেজে থাকা ভলভো বাসে আগুন লাগার খবর আসে। খবর পেয়ে প্রথমে আগুন নিয়ন্ত্রণে ডেমরা ফায়ার স্টেশনের দুটি ইউনিট ও পরে সিদ্দিকবাজার থেকে আরও তিনটি ইউনিট যোগ দেয়।

রাত ৯টা ৪৮ মিনিটে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে তার আগেই আগুনে লন্ডন এক্সপ্রেসের ১৪টি ভলভো বাস পুড়ে যায়।

প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও অন্য ক্ষয়ক্ষতির কোনো তথ্য জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা।

টিটি/এমকেআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img