6 C
New York

রাজশাহীর আড়ানী যেন এখন ‘হলুদের দেশ’

Published:

হলুদ ব্যবসার বড় প্রতিষ্ঠানগুলো গড়ে উঠেছে আড়ানী পৌর এলাকার চকসিংগা মহল্লায়। আর সবচেয়ে বড় ব্যবসায়ী হলেন মো. সিদ্দিক মোল্লা। তাঁর প্রতিষ্ঠানের নাম আড়ানী ট্রেডার্স, যেখানে শ খানেক শ্রমিক কাজ করেন।

সরেজমিনে সম্প্রতি আড়ানী-বাঘা সড়কের পাশে সিদ্দিক মোল্লার আড়ানী ট্রেডার্সে গিয়ে ৮৫ জন শ্রমিক-কর্মচারীকে কাজ করতে দেখা গেছে। তাঁদের মধ্যে বেশির ভাগই নারী। তাঁদের আয়েই চলে সংসার। কারণ, তাঁরা নিঃস্ব-নিরীহ পরিবারের, যাঁদের অনেকের স্বামী নেই। আবার অনেকের স্বামী থাকলেও কাজ করতে পারেন না।

আশার কথা হচ্ছে, হলুদ ব্যবসায়ীদের কারখানায় কাজ করে অনেক নারীর ভাগ্য ফিরেছে। যেমন চকসিংগা গ্রামের প্রায় সব শ্রমিকের বাড়িতে ইতিমধ্যে পাকা ঘর উঠেছে। আড়ানী ট্রেডার্সেই কথা হলো শেফালী বেগমের (৩৭) সঙ্গে। তিনি জানান, তাঁর স্বামী শারীরিক প্রতিবন্ধী। কোনো কাজ করতে পারেন না। ছেলেমেয়ে তিনজন। তিনি হলুদের কারখানায় কাজ করে দৈনিক ৩০০ টাকা মজুরি পান। তা দিয়েই চলে সংসারের খরচ।

আড়ানীতে হলুদ ব্যবসার পথিকৃৎ মো. সিদ্দিক মোল্লা তাঁর আড়ানী ট্রেডার্সে বসে প্রথম আলোর সঙ্গে কথা বলেন। তিনি জানান, চার প্রজন্ম ধরে তাঁরা হলুদের ব্যবসা করছেন। আগে তাঁর বাপ-দাদা হলুদের ব্যবসা করতেন, এখন তাঁর ছেলেও এই ব্যবসা করছেন।

বর্তমানে আড়ানীর বড় হলুদ ব্যবসায়ীদের মধ্যে রয়েছেন নূর মোহাম্মদ মোল্লা, কুদ্দুস মোল্লা, জাহাঙ্গীর মোল্লা, নূহু মুন্সী ও হাবি মোল্লা।

Related articles

Recent articles

spot_img