19.1 C
New York

যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্র ভেটো না দেওয়ায় মুখোমুখি অবস্থানে বাইডেন-নেতানিয়াহু

Published:

গাজায় ইসরায়েলি হামলা শুরুর পর থেকে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানাতে একাধিক প্রস্তাব উঠেছে নিরাপত্তা পরিষদে। বেশির ভাগ প্রস্তাব পাস হয়নি যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগের কারণে। অবশেষে নীতি বদলে বাইডেন ‘ভেটো’ ক্ষমতার প্রয়োগ করে প্রস্তাব পাস হওয়া ঠেকানোর পরিবর্তে ভোটদানে বিরত থাকার নির্দেশ দেন। গাজায় হামলা বিষয়ে নেতানিয়াহুর অবস্থান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের হতাশার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে ভোটদানে বিরত থাকার মধ্য দিয়ে।

আগামী নভেম্বরের শুরুতে হবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এ নির্বাচনে আবার প্রার্থী হবেন জো বাইডেন। এমন পরিস্থিতিতে গাজায় ইসরায়েলি হত্যাযজ্ঞ বন্ধে তাঁর ওপর চাপ বাড়ছে। এ নিয়ে শুধু যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রদেশগুলো নয়, বাইডেনের নিজ দলের অনেক নেতাও তাঁকে চাপ দিচ্ছেন।

এদিকে নেতানিয়াহুও দেশের মধ্যে এ বিষয়ে বেশ কিছু চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন। একদিকে যাঁদের সঙ্গে জোট করে তিনি সরকার গঠন করেছেন, সেই শরিকেরা ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে আরও কঠোর অবস্থান নেওয়ার জন্য তাঁকে চাপ দিচ্ছেন, অন্যদিকে হামাসের কাছে থাকা জিম্মি ইসরায়েলিদের পরিবারগুলোর অভিযোগ, জিম্মিদের মুক্ত করে আনার জন্য যা করার প্রয়োজন, নেতানিয়াহুর সরকার তা করছে না। এ অভিযোগ তুলে প্রায়ই বড় বড় বিক্ষোভ হচ্ছে ইসরায়েলে। বিক্ষোভ থেকে নেতানিয়াহুর অবিলম্বে পদত্যাগের দাবিও জানানো হচ্ছে।

সোমবার ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ইসরায়েলি প্রতিনিধিদলের যুক্তরাষ্ট্র সফর বাতিলের ঘোষণা আসার পাশাপাশি নেতানিয়াহু বলেছেন, প্রস্তাবে ভেটোদানে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যর্থতা স্পষ্টতই তাদের আগের অবস্থান থেকে সরে আসা। এতে গাজায় ইসরায়েল যে যুদ্ধ করছে, তা ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

Related articles

Recent articles

spot_img