25.8 C
New York

মুমিনুলও জানেন না সিলেটে কত রান নিরাপদ

Published:

বোলিংয়ে ৩ উইকেট নেওয়ার পর ব্যাটিংয়ে ৪০ রান করে দিন শেষে সাবেক টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল সংবাদ সম্মেলনে আসেন দলের প্রতিনিধি হয়ে। ম্যাচের ফলাফল নিজেদের দিকে আনতে হলে কী করতে হবে জানতে চাওয়ায় বলেছেন, ‘স্বাভাবিক ক্রিকেটটা খেললেই ভালো। যত পারা যায় ওদের দিক থেকে খেলা নিজেদের দিকে নিয়ে আসতে হবে। টেস্ট ক্রিকেটটাই এমন। স্বাভাবিক ব্যাটিং করতে হবে। এরপর ধৈর্য ধরে বোলিং করে যেতে হবে।’

প্রথম ইনিংসে দুই দলের রানের ব্যবধান মাত্র ৭ রান। দ্বিতীয় ইনিংসটা তাই যেন একটা আলাদা ম্যাচেই পরিণত হয়েছে। প্রথম ইনিংসের হিসাব-নিকাশ ভুলে এক ইনিংসের ‘এই ম্যাচে’ যারা বলে-ব্যাটে আধিপত্য দেখাবে তারাই জিতবে টেস্ট। তবে নিউজিল্যান্ডকে অন্তত কত রানের লক্ষ্য দিলে নিরাপদ থাকা যাবে, সে ব্যাপারে মুমিনুলের কাছেও নির্দিষ্ট কোনো উত্তর নেই, ‘এটা বলা খুব কঠিন। আমার কাছে এখনো মনে হচ্ছে, উইকেট ভালো। ৪০০-ও হতে পারে, সাড়ে ৩০০-ও হতে পারে। কালকের (আজ) ওপর নির্ভর করছে সবকিছু। কাল (আজ) চতুর্থ দিন, উইকেট অন্য রকম আচরণও করতে পারে।’

অবশ্য উইকেট যেমনই হোক, বাংলাদেশ যদি ৪০০ রানের লক্ষ্য দিতে পারে তাহলে আর নিউজিল্যান্ডের কোনো আশা নেই বলেই মনে হচ্ছে মুমিনুলের। এটা বলতে অবশ্য ৫৮ টেস্ট খেলা মুমিনুল হক হওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। চতুর্থ ইনিংসে ৪০০ তাড়া করে জেতা কতটা কঠিন, সেটি ক্রিকেট অনুসরণকারী মাত্রই জানেন। ১৪৬ বছরের টেস্ট ইতিহাসে চতুর্থ ইনিংসে ৪০০ রান করে জয়ের উদাহরণই তো মাত্র চারটি।

Related articles

Recent articles

spot_img