4.9 C
New York

মার্কিন ক্রুড উৎপাদন কমেছে ৬ শতাংশ

Published:

জানুয়ারিতে মার্কিন ক্রুড উৎপাদন কমেছে। বছরের শুরুর মাসে দৈনিক ১২ দশমিক ৫ মিলিয়ন ব্যারেল তেল উৎপাদন করে দেশটি, যা ডিসেম্বরের তুলনায় অন্তত ছয় শতাংশ কম। তীব্র শীতের কারণে দেশটিতে তেলের উৎপাদন কমে। শুক্রবার (২৯ মার্চ) জ্বালানি তথ্য প্রশাসন বিভাগের প্রকাশিত তথ্যে এমন চিত্র ফুটে উঠেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি ক্রুড তেল উৎপাদন হয় টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে। জানুয়ারিতে সেখানে দৈনিক উৎপাদন হয় পাঁচ দশমিক চার মিলিয়ন ব্যারেল, যা আগের মাসের চেয়ে পাঁচ শতাংশ কম। একই সঙ্গে উত্তর ডাকোটায় উৎপাদন কমে ১৩ শতাংশ।

জানুয়ারিতে উইন্টার ঝড়ের কারণে তেলের উৎপাদন কমে যায়। সে সময় ব্যাপক তুষারপাত ও ভারী বৃষ্টিরকবলে পড়ে যুক্তরাষ্ট্র।

এদিকে শনিবার (৩০ মার্চ) ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের দাম ব্যারেল প্রতি বেড়ে ৮৩ দশমিক ১৭ ডলারে দাড়িয়েছে। ব্রেন্ট ক্রুডের দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৭ ডলারে।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডে জাহাজের ধাক্কায় একটি সেতু বিধ্বস্ত হয়েছে। কত কয়েক দিন ধরে সেতুটির ভাঙা অংশ নদীতে পড়ে আছে। তাই সেগুলো সরিয়ে নিতে উদ্যোগ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এরই মধ্যে বাল্টিমোর বন্দরে নিয়ে আসা হয়েছে বিশাল এক ক্রেন।

মার্কিন কোস্ট গার্ডের মুখপাত্র কারমেন কার্ভার বলেছেন, শুক্রবারও ক্রুরা সেতুর ক্ষয়ক্ষতি মূল্যায়ন করেছেন। যে ক্রেনটি নিয়ে আসা হয়েছে সেটি এক হাজার টনের ভার উত্তোলন করতে পারে। বৃহস্পতিবার ক্রেনটি পৌঁছালেও শনিবার সকাল থেকে কাজ শুরু করবে বলে জানানো হয়।

সূত্র: রয়টার্স

এমএসএম

 

 

 

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img