9.2 C
New York

ভারতের সবচেয়ে নিম্নমানের প্রোডাক্ট হলো আওয়ামী লীগ: গয়েশ্বর

Published:

ভারতের পণ্য বর্জন প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, আমরা ভোট বর্জনের কথা বলেছিলাম। আর দেশের মানুষ ভারতের পণ্য বর্জনের কথা বলছে। আরে, দেশের মানুষ তাদের পণ্য বর্জন করেছে গত ৭ জানুয়ারি। ভারতের সবচেয়ে নিম্নমানের প্রোডাক্ট হলো আওয়ামী লীগ এবং এই সরকার। সুতরাং, এটা যদি ঠিকমতো বর্জন করতে পারেন, তাহলে ভারতের পণ্য বর্জন হবে।

শনিবার (৩০ মার্চ) সন্ধ্যায় বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও ইফতার মাহফিলে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি এসব কথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির উদ্যোগে শহরের মিশনপাড়া এলাকার হোসিয়ারি সমিতি ভবনে এ ইফতারের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

ভারতের সবচেয়ে নিম্নমানের প্রোডাক্ট হলো আওয়ামী লীগ: গয়েশ্বর

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের জবানবন্দি দিয়েছেন, ভারত যদি আমাদের পাশে না থাকতো তাহলে নির্বাচন সম্পূর্ণ করা সম্ভব হতো না। তার মানে তারা বুঝিয়ে দিয়েছে তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত না। ভারত থেকে মনোনীত। ভারত, চীন ও রাশিয়া তিন দেশের প্রোডাক্ট হলো এই সরকার। আর তাই জনগণ এখন ভোট বর্জন নয়, ওদের যারা বারবার ক্ষমতায় আনে তাদের পণ্য বর্জনের কথা বলছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘একজন এমপি বললেন, জিনিসপত্রে দাম বেশি কিন্তু একজন মানুষও না খেয়ে মরেনি। আমি সেই বক্তব্য শুনে হাসলাম। গুলি থাকতে না খেয়ে মরবে কেন? গুলি খেয়ে মরছে। সীমান্তে আমাদের মানুষজনকে গুলি করে মারছে। হাজার হাজার কোটি টাকা অস্ত্র কিনি আর সীমান্তে আমাদের বর্ডার গার্ড দাঁড়িয়ে থাকে। আমরা যদি প্রতিবাদ করতেই না পারি তাহলে অস্ত্রের দরকার কী?’

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খানের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির জাতীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী সাইদুল আলম বাবুল, সহ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ ও মহানগর বিএনপির সদস্যসচিব অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু।

মোবাশ্বির শ্রাবণ/এসআর/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img