11.5 C
New York

ভারতের আঞ্চলিক নেতৃত্বের ভূমিকায় যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন

Published:

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় কৌশল প্রকাশের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র এ অঞ্চলের জন্য একটি অভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গিকে এগিয়ে নিতে যে পদক্ষেপ নিয়েছে, তাকে ‘ঐতিহাসিক’ অভিহিত করে এ পর্যালোচনায় বলা হয়, এ দৃষ্টিভঙ্গি মুক্ত এবং উদার, সংযুক্ত, সমৃদ্ধ, নিরাপদ এবং স্থিতিস্থাপক।

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র বলছে যে এ অভিন্ন মূল্যবোধ ও স্বার্থকে এগিয়ে নিতে সহযোগিতা যেমন বেড়েছে, তেমনি কিছু চ্যালেঞ্জও রয়েছে। এতে বলা হয়, চীন নিজ দেশে আরও নিপীড়ক এবং বিদেশে আরও প্রভাব খাটাচ্ছে, মানবাধিকার এবং আন্তর্জাতিক আইনকে ক্ষুণ্ন করছে এবং আন্তর্জাতিক ব্যবস্থায় নতুন রূপ দিতে চাইছে। উত্তর কোরিয়া তার বেআইনি পারমাণবিক অস্ত্র এবং দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি প্রসারিত করে চলেছে বলেও পর্যবেক্ষণে তুলে ধরা হয়েছে। এতে বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবগুলো ছোট দ্বীপরাষ্ট্রগুলোর জন্য একটি অস্তিত্বের হুমকি সৃষ্টি করছে।

আঞ্চলিক নেতা হিসেবে ভারতের ভূমিকাকে সমর্থন করার প্রশ্নে এতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র বহুপক্ষীয় ও দ্বিপক্ষীয় ফোরামের মাধ্যমে এই অঞ্চলে ভারতের নেতৃত্বকে সমর্থন করে। ২০২৩ সালের জুনে প্রধানমন্ত্রী মোদির ওয়াশিংটনে সফর, সেপ্টেম্বরে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের জন্য প্রেসিডেন্ট বাইডেনের নয়াদিল্লি সফর, পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিনের সঙ্গে ভারতীয় মন্ত্রীদের বৈঠকগুলোর কথা উল্লেখ করে এতে বলা হয়, ‘আমরা প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা, জলবায়ু ও পরিচ্ছন্নশক্তি, মহাকাশ, বহুপক্ষীয় সহযোগিতা এবং জনগণের সঙ্গে জনগণের সম্পর্কের বিষয়ে একসঙ্গে কাজ করছি।’

Related articles

Recent articles

spot_img