29.9 C
New York

বুয়েটের ওপর সবার যে আস্থা আছে, তা কাজে লাগাতে হবে: উপাচার্য

Published:

বুয়েটের ওপর সবার যে আস্থা আছে, তা কাজে লাগাতে হবে: উপাচার্য

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর দেশের মানুষের যে আস্থা আছে, তা কাজে লাগাতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. সত্য প্রসাদ মজুমদার।

তিনি বলেন, আমাদের দেশপ্রেম আছে, সেটাকে যদি কাজে না লাগাই তাহলে হবে না। আমাদের বুয়েটের ওপর যে আস্থা আছে, সেটাকে যদি কাজে না লাগাই বা কোনো কাজে সেটা ব্যবহার করা হবে না, এটা হতে পারে না। আমাদের প্রযুক্তি আছে, আমরা গবেষণা করি, জ্ঞান তৈরি করি। সেটাকে কাজে লাগাতে হবে, আমাদের যা আছে, তা ব্যবহার করতে হবে।

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বুয়েট উপাচার্য এসব কথা বলেন। মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) সকালে বুয়েট কাউন্সিল ভবনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অধ্যাপক সত্য প্রসাদ মজুমদার বলেন, আমরা যেকোনো কাজ করতে পারি। আমরা যদি তা না পারতাম তাহলে ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু নূরুল উলা স্যারকে ট্রান্সমিটার তৈরি করে দিতে বলতেন না। উনি (বঙ্গবন্ধু) জানতেন যে, আমরা পারি। সেজন্যই তাকে ট্রান্সমিটার তৈরির দায়িত্ব দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। আমাদের শক্তি আছে, বুদ্ধি আছে, মেধা আছে। কাজেই আমাদের দক্ষতা, প্রযুক্তির প্রসার ঘটানো উচিত। আমাদের মেধা দিয়ে যাতে দেশের উন্নয়নে এগিয়ে আসতে পারি, আজকের দিনে আমাদের এ প্রত্যয় হওয়া উচিত।

বঙ্গবন্ধু বুয়েটের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ভালোবাসতেন উল্লেখ করে উপাচার্য বলেন, তিনি বুয়েটের প্রথম সমাবর্তনে এসেছিলেন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্ডিন্যান্স করে দিয়েছিলেন। বুয়েটের ছাত্র-শিক্ষকদের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর কী রকম সম্পর্ক ছিল, তা আমরা নূরুল উলার সঙ্গে সম্পর্ক দেখেই বুঝতে পারি। বুয়েটের ছাত্র-শিক্ষক বঙ্গবন্ধুর আস্থাভাজন ছিল। তিনি নূরুল উলাকে ট্রান্সমিটার তৈরি করে দিতে আবদার করেছিলেন। আর নূরুল উলা মাত্র ৯ দিনে গোটা বাংলাদেশ কাভার করে এমন একটি ট্রান্সমিটার তৈরি করে দিয়েছিলেন।

অনুষ্ঠানে বুয়েটের শিক্ষক ড. নূরুল উলার ধারণকৃত ভিডিও, যেটি এনবিসি নিউজে প্রকাশ করা হয়েছিল সেটি প্রদর্শন করা হয়। এছাড়া স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ড. নূরুল উলার সাক্ষাৎকার সম্বলিত একটি লিফলেটও প্রকাশ করেছে বুয়েট।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বুয়েটের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুল জব্বার খাঁন, মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য দেন স্থাপত্য বিভাগের অধ্যাপক ড. খন্দকার সাব্বির আহমেদ।

বুয়েটের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. মো. ফোরকান উদ্দিনের সঞ্চালনায় সভায় বুয়েটের সিন্ডিকেট সদস্য, ডিন, বিভাগীয় প্রধান, ইনস্টিটিউট, পরিদপ্তর ও দপ্তরের পরিচালক, হল প্রভোস্ট, শিক্ষক, অফিস প্রধান ও শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

এএএইচ/এমএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img