13.2 C
New York

বাংলাদেশ কোনো দেশের প্রভুত্ব মানবে না: মির্জা ফখরুল

Published:

বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনার উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব এর প্রতিবাদ না হওয়ায় ছাত্র ও নারীদের প্রতি হতাশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘এই যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকেরা ছাত্রীদের শ্লীলতাহানি করেছে, আপনারা কী করছেন, আপনারা কী করেছেন। একটা প্রতিবাদ পর্যন্ত করেননি। কোথায় গেল সেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, কোথায় গেল সেই ছাত্ররা—যারা স্বাধীনতাযুদ্ধ করেছে, ভাষা আন্দোলন করেছে, নব্বইয়ে গণ-অভ্যুত্থান করেছে। কোথায় গেছে তারা।’

আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, লক্ষ্য, আকাঙ্ক্ষা, স্বপ্ন—সব ধ্বংস করে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক বাংলাদেশের আকাঙ্ক্ষা, ভোট দিয়ে প্রতিনিধি নির্বাচন করা, গণতান্ত্রিক পরিবেশে বাস করা, স্বাধীনভাবে কথা বলতে পারা, লিখতে পারা, ভিন্নমত পোষণ করতে পারা, রাষ্ট্রে জনগণের মালিকানা—সব তারা কেড়ে নিয়েছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তারা সংবিধানও কাটাছেঁড়া করে শেষ করেছে। এই সংবিধানে এখন তিনটি অনুচ্ছেদ আছে। যে অনুচ্ছেদ আপনি কোনো দিন পরিবর্তন করতে পারবেন না। সেখানে একজন ব্যক্তি, একটি পরিবার ছাড়া আর কিছু নেই। সর্বজন গ্রহণযোগ্য নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীন নির্বাচনী ব্যবস্থা তুলে নিয়ে আবার এক দলীয় সরকারের অধীন নির্বাচন ফিরিয়ে এনেছে। সেটা করতে গিয়ে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভেঙে তছনছ করে দিয়েছে।’

Related articles

Recent articles

spot_img