24.1 C
New York

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সংকট কতদিনে ঠিক হবে জানতে চেয়েছেন ডোনাল্ড লু

Published:

বাংলাদেশের অর্থনীতি ও রিজার্ভের ওপর যে চাপ রয়েছে তা অনুধাবন করতে পারছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে কতদিনের মধ্যে অর্থনৈতিক সংকট ঠিক হবে, তা জানতে চেয়েছেন ঢাকা সফররত মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের গুলশানের বাসভবনে মঙ্গলবার (১৪ মে) রাতে নৈশভোজে এ বিষয়ে জানতে চান ডোনাল্ড লু।

জবাবে সালমান এফ রহমান ডোনাল্ড লু কে জানান, আমরা আশাবাদী ডলারের রিজার্ভ বাড়বে। কিছুদিন আগে ডলারের মূল্য বাড়িয়েছি। ফলে আমাদের রপ্তানি ও রেমিট্যান্স বাড়বে। আমাদের রিজার্ভের পজিশন ভালো হবে।

আরও পড়ুন: ‌বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক পুনর্গঠনে আগ্রহী যুক্তরাষ্ট্র

নৈশভোজ শেষে নিজ বাসভবনে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন সালমান এফ রহমান। এ সময় তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত উপস্থিত ছিলেন।

মার্কিন প্রতিনিধি দলকে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা বলেন, যদিও আমাদের অর্থ পরিশোধে একটু সমস্যা হচ্ছে, দেরি হচ্ছে, তবে আমাদের অর্থছাড় নিয়মিত হচ্ছে। একেবারে অর্থছাড় বন্ধ করিনি।

সালমান এফ রহমান বলেন, নির্বাচনের পরে তারা আমাদের সঙ্গে সম্পর্ক আরও ভালো করতে চান। অনেকগুলো খাতে তারা কাজ করতে চান। নির্বাচনের আগে তাদের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে সেটা আমরাও তুলিনি, তারাও তোলেননি। আমরা চাচ্ছি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যেন আমাদের সম্পর্কটা ভালো হয়। ডোনাল্ড লু বলেছেন উই ওয়ান্ট রিবিল্ড দ্য ট্রাস্ট।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনে বাংলাদেশের মতো মার্কিনরাও স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চায়। সংকট সমাধানের দিকে যাচ্ছে বলে তারা ইঙ্গিত দিয়েছেন। কিন্তু সমাধানটি কী, তা বিস্তারিত জানাননি।

ঢাকা সফরের প্রথম দিন মঙ্গলবার রাতে গুলশানে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের দেওয়া নৈশভোজে যোগ দেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস, দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক ব্যুরোর চিফ অফ স্টাফ ন্যাথানিয়াল হাফটসহ আরও তিন কর্মকর্তা।

সালমান এফ রহমান ছাড়াও নৈশভোজে আরও উপস্থিত ছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু, তথ্যমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী আলী আরাফাত, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, সাবেক রাষ্ট্রদূত ফারুক সোবাহান, ঢাকা স্কুল অব বিজনেসের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলিকুজ্জামান আহমেদ।

এসএম/এমআরএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img