11.6 C
New York

পবিত্র লাইলাতুল মিরাজ | প্রথম আলো

Published:

মিরাজে যাঁদের সঙ্গে সাক্ষাৎ

মহানবী (সা.)-এর সঙ্গে প্রথম আসমানে হজরত আদম (আ.), দ্বিতীয় আসমানে হজরত ইয়াহইয়া (আ.) ও হজরত ঈসা (আ.), তৃতীয় আসমানে হজরত ইউসুফ (আ.), চতুর্থ আসমানে হজরত ইদ্রিস (আ.), পঞ্চম আসমানে হজরত হারুন (আ.), ষষ্ঠ আসমানে হজরত মুসা (আ.), সপ্তম আসমানে হজরত ইবরাহিম (আ.)-এর দেখা হয়। প্রত্যেকের সঙ্গে তিনি সালাম, কালাম ও কুশল বিনিময় করেন। তিনি বায়তুল মামুর এবং সিদরাতুল মুনতাহার কাছে যান। (বুখারি শরিফ)

মিরাজের সিদ্ধান্ত:

সুরা বনি ইসরাইলে ২২ থেকে ৪৪ আয়াতে আছে, ‘আল্লাহর সঙ্গে অপর কোনো উপাস্য স্থির কোরো না, করলে নিন্দিত ও নিঃসহায় হয়ে পড়বে।’এ সুরার এর পরের আয়াতগুলো পর পর দেখে যাওয়া যাক: তাঁকে ছাড়া অন্য কারও উপাসনা না করতে ও মাতা পিতার প্রতি সদ্ব্যবহার করতে তোমার প্রতিপালক আদেশ দিয়েছেন। তোমার জীবদ্দশায় ওদের একজন বা দুজনই বার্ধক্যে পৌঁছালেও তাদের ব্যাপারে ‘উহ্-আহ্’ বোলো না, আর ওদেরকে অবজ্ঞা কোরো না, ওদের সঙ্গে সম্মান করে নম্রভাবে কথা বলবে। তুমি অনুকম্পার সঙ্গে বিনয়ের ডানা নামাবে, আর বল বে, ‘হে আমার প্রতিপালক! ওঁদের ওপর দয়া করো যেভাবে ছেলেবেলায় ওঁরা আমাকে লালনপালন করেছিলেন।’ তোমাদের অন্তরে যা আছে তোমাদের প্রতিপালক তা ভালো করেই জানেন। যদি তোমরা সৎকর্মপরায়ণ হও, আল্লাহ্ তো ক্ষমা করেন তাদেরকে যারা আল্লাহর দিকে মুখ ফেরায়। আত্মীয়স্বজনকে তার প্রাপ্য দেবে এবং অভাবগ্রস্ত ও পথচারীকেও, আর কিছুতেই অপব্যয় কোরো না। যারা অপব্যয় করে, তারা অবশ্যই শয়তানদের ভাই, আর শয়তান তার প্রতিপালকের প্রতি বড়ই অকৃতজ্ঞ।

Related articles

Recent articles

spot_img