6.9 C
New York

নোয়াখালীতে মা-মেয়েকে ধর্ষণের আগে চুরির নাটক সাজান আওয়ামী লীগ নেতা ও সহযোগীরা: পুলিশ

Published:

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় গত সোমবার দিবাগত রাতে মা (৩০) ও মেয়েকে (১২) ধর্ষণের জন্য বাড়িতে ঢোকার আগে চুরির নাটক সাজান গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ নেতা আবুল খায়ের ওরফে মুন্সি মেম্বার (৫০)। এর আগে বিভিন্ন সময় ওই নারীকে কুপ্রস্তাব দিয়ে সফল না হয়ে সহযোগী হারুনের মাধ্যমে চুরির নাটক সাজান। সে অনুযায়ী তৃতীয় আরেকজনকে দিয়ে সিঁধ কেটে বসতঘরে ঢুকে দুজন মাকে এবং একজন মেয়েকে ধর্ষণ করেন। আজ বুধবার নিজ কার্যালয়ে ডাকা প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান জেলা পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান।

পুলিশ সুপার বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত তিনজনের মধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপরজনকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে। গ্রেপ্তার এক ব্যক্তির তথ্যের ভিত্তিতে সিঁধ কাটার কাজে ব্যবহৃত কোদাল এবং ভয় দেখানোর কাজে ব্যবহৃত ধারালো দা, কালো প্যান্ট ও কালো টুপি উদ্ধার করা হয়েছে।

মা ও মেয়েকে ধর্ষণের পর অভিযুক্ত ব্যক্তিরা ঘরে থাকা নগদ টাকা ও সোনার গয়না নিয়ে চলে যান। ঘটনাটি কাউকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেন তাঁরা।

জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গ্রেপ্তার দুজন হলেন সুবর্ণচর উপজেলার এক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদ্য বহিষ্কৃত সভাপতি আবুল খায়ের ওরফে মুন্সি মেম্বার ও তাঁর সহযোগী মো. মেহেরাজ (৪৮)। তাঁদের মধ্যে আবুল খায়েরকে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে জেলা শহর মাইজদী থেকে এবং মেহেরাজকে গতকাল দিবাগত রাতে সুবর্ণচরের চর ক্লার্ক এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান বলেন, নির্যাতনের শিকার নারী ও তাঁর মেয়ের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে প্রথমে এজাহারভুক্ত আসামি আবুল খায়েরকে, পরে অজ্ঞাতনামা আসামি মেহেরাজকে গ্রেপ্তার করা হয়।

Related articles

Recent articles

spot_img