10.9 C
New York

ড্যাপ নিয়ে সমস্যা থাকলে আলোচনার ভিত্তিতে সমাধান

Published:

রাজউক প্রণীত বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনা (ড্যাপ) নিয়ে কোনো সমস্যা থাকলে সেটা সবার সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে সমাধান করা হবে বলে জানিয়েছেন রাজউকের চেয়ারম্যান মো. আনিছুর রহমান মিঞা।

শনিবার (২৩ মার্চ) আবাসন ব্যবসায়ীদের সংগঠন রিহ্যাব আয়োজিত ইফতার মাহফিলের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

ইফতার ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন রিহ্যাব সভাপতি মো. ওয়াহিদুজ্জামান। অনুষ্ঠানে রিহ্যাবের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি লিয়াকত আলী ভূইয়া, অন্যান্য সহ-সভাপতি, বিভিন্ন বাণিজ্য সংগঠনের নেতা, রিহ্যাবের বর্তমান ও সাবেক নেতা, রিহ্যাব পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক এবং রিহ্যাব সদস্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিসহ প্রায় এক হাজার লোক অংশ নেন।

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চেয়ারম্যান বলেন, রিহ্যাব আছে বলেই এখনো পরিবেশবান্ধব বিল্ডিং হচ্ছে। রিহ্যাব নতুন কমিটি আরও উদ্যোগ নিলে ঝুঁকিমুক্ত বিল্ডিং হবে এ নগরে। এজন্য সবধরনের সহযোগিতা করা হবে। নিরাপদ নগরী গড়তে আগামীতে রিহ্যাবের সঙ্গে এক হয়ে কাজ করতে চাই।

তিনি বলেন, ড্যাব সংশোধন হয়েছে। যৌক্তিক দাবি থাকলে প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে প্রয়োজনে আবারও সংশোধন হতে পারে। সব বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা থাকবে জনগণের দাবি বা চাহিদাকে গুরুত্ব দিয়েই।

দোয়া ও ইফতার মাহফিলে আবাসন খাতের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা তুলে ধরেন রিহ্যাব সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান। তিনি বলেন, আমাদের আবাসন খাত দেশের অর্থনীতিতে বিশাল অবদান রাখছে নীরবে। প্রায় ৫০ লাখ নাগরিকের কর্মসংস্থান রয়েছে এ শিল্পে। দিন শেষে সবাই চায় একটা শান্তির আবাস। সেই শান্তির আবাস তৈরির কাজটাই করছি আমরা।

বিগত এক দশকে এ শিল্পে নানা সমস্যা তৈরি হয়েছে জানিয়ে রিহ্যাব সভাপতি বলেন, কিছুটা সমস্যা তৈরি হয়েছে বৈশ্বিকভাবে। বিশেষ করে নির্মাণসামগ্রীর মূল্যবৃদ্ধি। আবার কিছু সমস্যা তৈরি হয়েছে আমাদের নীতি সহায়তার অভাবে।

তিনি বলেন, নতুন ড্যাপে ফার হ্রাস, নিবন্ধন ব্যয় বৃদ্ধি ও গৃহঋণের সুদের হার বৃদ্ধিসহ নানা কারণে আবাসন শিল্প সংকট চাপে রয়েছে। সাধারণ মেম্বারদের সঙ্গে নিয়ে আমরা সংকটগুলো দূর করতে চাই। এজন্য আমরা আমাদের নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষ এবং সরকারের সহযোগিতা কামনা করি।

ইফতারের আগে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

ইএআর/এসআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img