8.5 C
New York

জনগণের বাঁচামরা নিয়ে সরকারের মাথাব্যথা নেই: শাহাদাত

Published:

জনগণ বাঁচলো না মরলো তা নিয়ে সরকারের কোনো মাথাব্যথা নেই বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন।

তিনি বলেন, মশার উপদ্রবে অতিষ্ঠ চট্টগ্রাম নগরবাসী। বেশকিছু দিন ধরে এই পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। মশার প্রাদুর্ভাব অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে। মশার কয়েল, নানান ব্র্যান্ডের ওষুধ ও ধূপ-ধোঁয়া ব্যবহার করেও মশার হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছেন না নগরবাসী। চট্টগ্রাম এখন মশার নগরীতে পরিণত হয়েছে। আর এই বিষয়ে সরকারের কোনো কার্যকর পদক্ষেপ নেই।

বুধবার (২০ মার্চ) বিবেলে নগরীর চকবাজার কাপাসগোলা দেরাজ মিয়া লেইনে চকবাজার ওয়ার্ড বিএনপির উদ্যোগে সেহেরি ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

শাহাদাত বলেন, ডামি ভোটে ক্ষমতায় বসে নির্বিকার ভূমিকায় সরকার। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে মানুষ এমনিতেই দিশেহারা। এর মধ্যে ওয়াসার নিরাপদ পানি নেই। চারিদিকে হাহাকার ও দীর্ঘশ্বাস। তাই যাদের সামান্য মশা মারার মুরোদ নেই, তাদের আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না জনগণ। ব্যর্থ সরকারকে বলবো, এখনই ক্ষমতা ছেড়ে দিন। জোর করে ক্ষমতা দখলে রেখে জনগণকে আর শাস্তি দেবেন না।

তিনি বলেন, আজকাল নগরীর নালা-নর্দমা ও ভবনের আশপাশের জায়গায় চসিকের কাউকে ওষুধ ছেটাতে দেখা যায় না। মশা নিয়ন্ত্রণে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন যে পরিমাণ আর্থিক ব্যয় বরাদ্দের কথা বলছে, তার সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই। সন্ধ্যার পর থেকে বাড়িঘরে ঢুকে পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে মশা। নগরবাসী মশার উপদ্রব থেকে বাঁচতে বিকেল থেকেই বাচ্চাদের মশারির ভেতর ঢুকিয়ে দিচ্ছে। সেখানেই পড়ালেখা এবং খাওয়া দাওয়া করতে হচ্ছে। আতঙ্ক তৈরি হয়েছে মশাবাহিত রোগ ছড়িয়ে পড়ারও।

চকবাজার ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মন্জুর আলম মন্জুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এম এ হালিম বাবলুর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর বিএনপির সদস্যসচিব আবুল হাশেম বক্কর। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, সদস্য মো. কামরুল ইসলাম, মহানগর বিএনপি নেতা শহীদুল ইসলাম চৌধুরী, ডা. এস এম সারোয়ার আলম, সালাউদ্দীন কায়সার লাভু, মো. মহসিন, রমজু মিয়া, মহানগর যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক এমদাদুল হক বাদশা, মহানগর কৃষকদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ইকবাল হোসেন জিসান, ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আনাস, ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক জসিম বাদশা, দপ্তর সম্পাদক মো. সেলিম, অঙ্গ সংগঠনের জাহেদুল হক জাকু, বাবুল, মো. এরশাদ, মো. রবিন, আবদুস সোহবান, বাপ্পী, মো. রাসেল, মো. শহীদ, কামাল উদ্দিন, মো. রাজু, আবদুল গফুর, আলী হোসেন প্রমুখ।

ইকবাল হোসেন/ইএ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img