4.9 C
New York

চালের দামও বেঁধে দেবে সরকার

Published:

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে চালের নির্ধারিত দরের একটি তালিকা পাওয়া যায়। এতে দেখা যায়, সরকার মূলত বোরো ও আমন মৌসুমে উৎপাদিত মোটা ও মাঝারি চালের দাম নির্ধারণ করতে যাচ্ছে। এই দুই মৌসুমেই দেশে সবচেয়ে বেশি চাল পাওয়া যায়। আউশে কম।

দাম নির্ধারণ হবে জাতভিত্তিক। যেমন বোরো মৌসুমে উৎপাদিত হাইব্রিড হিরা, এসএলএইচ ৮ ব্রি হাইব্রিড জাতের চালের দাম হবে প্রতি কেজি সর্বোচ্চ ৪৮ টাকা ১ পয়সা। মন্ত্রণালয়ের বৈঠকে উৎপাদনমূল্য, মিলমালিক, পাইকারি ও খুচরা পর্যায়ে দাম নির্ধারণ করা হয়েছে।

মিলমালিকেরা এখন নিজেদের ব্র্যান্ডের নামে বিভিন্ন জাতের চাল বাজারজাত করেন। অভিযোগ আছে, বিভিন্ন জাতের চালকে কিছুটা ছেঁটে মিনিকেট নামে বিক্রি করা হয়। বাজারে জনপ্রিয় সরু এই চালের দামও বেশি। বিভিন্ন কোম্পানি নানা মোড়কে এই চাল বিক্রি করে। তারা দাম বাড়িয়ে দেয়। তাই আগে থেকেই এসব নাম বাদ দিয়ে জাতভিত্তিক নামে চাল বিক্রির উদ্যোগের কথা বলা হচ্ছিল।

প্রশ্ন হলো, যেসব চালের দাম নির্ধারণ করা হবে, তার মধ্যে সরু চাল থাকবে কি না। এখন পর্যন্ত যে ১৫ জাতের চালের কথা বলা হয়েছে, তার মধ্যে নাজিরশাইল, জিরাশাইলসহ বিভিন্ন সরু চাল নেই।

সরু চাল তালিকায় থাকবে কি না, তা নিয়ে কৃষিসচিব ওয়াহিদা আক্তারের কাছে গত রাতে মুঠোফোনে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘তা এখনই বলা যাচ্ছে না। তবে সময়মতো চমকটা দেবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ই।’

চালের দাম নির্ধারণ নিয়ে পুরো বিষয়টি বোঝার জন্য গতকাল বাণিজ্যসচিব তপন কান্তি ঘোষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ে ৩ এপ্রিল আরেকটি বৈঠক রয়েছে। সেখান থেকে সবকিছু উঠে আসবে বলে তিনি আশা করছেন।

Related articles

Recent articles

spot_img