10 C
New York

চাঁদপুরে জাটকা ধরার দায়ে ৩৩ জেলে আটক

Published:

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চাঁদপুরে মেঘনা নদীর অভয়াশ্রমে জাটকা ধরার দায়ে ৩৩ জেলেকে আটক করেছে টাস্কফোর্স। আটকদের মধ্যে ১৮ জনকে ১০ দিন করে কারাদণ্ড, ৬ জনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় ৯ জনকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকারিয়া হোসেন। রাতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন চাঁদপুর নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুজ্জামান।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত জেলেরা হলেন মো. নুরু সরকার (২৭), খোরশেদ বন্দুকশী (৪০), মো. রাসেল ঢালী (২২), মো. হোসেন (২৫), মো. আরিফ আব্দুল করিম (২৫), আব্দুল শাহজাহান (১৮), আব্দুল কাশেম (২১), রবিউল গাজী (২০), বিল্লাল হোসেন (১৯), রুবেল বেপারী (১৮), রাজিব শুক্কুর দেওয়ান (২৫), আব্দুর রহিম (৪০), খাজা বেপারী (৪০), ইব্রাহীম খলিল তালুকদার (৫২), জাকির রাঢ়ি (২৬), হাকিম খান (২৮)।

নিয়মিত মামলার আসামিরা হলেন মিন্টুন খান (৩৫), শরীফ মিজি (২৮), আল-আমিন হোসেন (২৪), আমিন খাঁ (৩৩), সোহাগ (৩৪) ও মো. নোমান (২২)।

ওসি কামরুজ্জামান বলেন, মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) মধ্যরাত থেকে বিকেল পর্যন্ত অভয়াশ্রম এলাকায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) একরামুল ছিদ্দিক-এর নেতৃত্বে মৎস্য দপ্তর, কোস্টগার্ড ও নৌপুলিশের যৌথ অভিযানে এসব জেলেদের আটক করা হয়। এসময় জেলেদের ৩টি বেহুন্দিজাল, ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, ৫টি ইঞ্জিনচালিত নৌকা ও ৫ হাজার মিটার সুতার জাল জব্দ করা হয়।

জব্দ করা জাল আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয় এবং নৌকাগুলো মামলার আলামত হিসেবে কোস্টগার্ড হেফাজতে রয়েছে।

অভিযানে চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. গোলাম মেহেদী হাসান, সদর উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো. তানজিমুল ইসলাম, সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, মৎস্য সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আশেক এস. সাত্তার, কোস্টগার্ড ও নৌপুলিশের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।

শরীফুল ইসলাম/এমএইচআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img