4 C
New York

গাজা যুদ্ধের মধ্যে লোহিত সাগরে জাহাজে হামলা, বেড়েছে তেলের দাম

Published:

মধ্যপ্রাচ্যে ভূরাজনৈতিক উত্তেজনা আবারও বেড়ে যাওয়ায় আজ সোমবার সকালে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম বেড়েছে।

গাজায় ইসরায়েল সর্বাত্মক হামলা শুরু করার পর তেল সরবরাহ নিয়ে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। এ ছাড়া ওপেক ও সহযোগী দেশগুলোর তেল সরবরাহ কমানোর ঘোষণা, তেলের বৈশ্বিক চাহিদা নিয়ে অনিশ্চয়তা ও লোহিত সাগরে জাহাজে হামলার কারণে এই খাতের ভবিষ্যৎ নিয়ে একধরনের ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের সংবাদে বলা হয়েছে।

আজ সকালে ব্রেন্ট ক্রুড ফিউচার্সের দাম ২৮ সেন্ট বা শূন্য দশমিক ৪ শতাংশ বেড়ে ব্যারেলপ্রতি ৭৯ দশমিক ১৬ ডলারে উঠেছে; সেই সঙ্গে ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট বা ডব্লিউটিআই ক্রুডের দাম ব্যারেলপ্রতি ২৯ সেন্ট বা শূন্য দশমিক ৪ শতাংশ বেড়ে ৭৪ দশমিক ৩৬ ডলার হয়েছে।

বাজার–বিশ্লেষকেরা বলছেন, ভূরাজনৈতিক উত্তেজনা নতুন করে বেড়ে যাওয়ার কারণে আজ সপ্তাহের প্রথম দিনে তেলের দাম বেড়েছে। ইসরায়েল গাজায় সর্বাত্মক হামলা শুরু করায় মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা এখন টান টান, যা অবশ্য তেলের বাজারের জন্য সহায়ক হয়েছে।

গাজায় ইসরায়েলের হামলার পাশাপাশি লোহিত সাগরের আন্তর্জাতিক জলসীমায় তিনটি বাণিজ্যিক জাহাজে হামলা হয়েছে। গতকাল রোববার মার্কিন সেনাবাহিনী এ তথ্য জানিয়েছে। ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা লোহিত সাগরে ইসরায়েলের দুটি জাহাজে ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর দাবি করেছে।

বাজার বিশ্লেষণকারী প্রতিষ্ঠান সিএমসি মার্কেটের বিশ্লেষক টিনা টেং বলেছেন, ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ নতুন করে শুরু হওয়ায় তেলের বাজারে প্রভাব পড়েছে। যদিও তিনি মনে করেন, চীনের অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার এখনো কাঙ্ক্ষিত মাত্রায় না পৌঁছায় তেলের দাম হয়তো খুব বেশি বাড়বে না।

Related articles

Recent articles

spot_img