12 C
New York

খিলগাঁওয়ে ভবনের নকশাবহির্ভূত অংশ অপসারণ রাজউকের

Published:

নকশাবহির্ভূত ভবন নির্মাণ করায় উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। এসময় রাজধানীর খিলগাঁও সি ব্লক এলাকায় কয়েকটি নকশাবহির্ভূত ভবনের আংশিক অপসারণ করা হয়।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযানের নেতৃত্ব দেন রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শারমিন আরা।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, নকশা না নেওয়া অপরাধ। নকশা নিয়ে সে অনুযায়ী না করে বর্ধিত করা এটিও বড় অপরাধ। রাজউক যে অনুযায়ী নকশার অনুমোদন দেয় এটা সবদিক বিবেচনা করে দেওয়া হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরও বলেন, নকশা নিয়ে সে অনুযায়ী ভবন করা হচ্ছে কি না সেটি যেমন দেখছি, তেমনি যারা একেবারে অনুমোদন না নিয়েই ভবন নির্মাণ শুরু করেছে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিচ্ছি। খিলগাঁও সি ব্লক এলাকায় নকশাবহির্ভূত কয়েকটি বহুতল ভবনের আংশিক অপসারণ করা হয়। নকশাবহির্ভূত নির্মাণাধীন ভবনগুলোর সেটব্যাক ও ভয়েডে ব্যত্যয় পাওয়া গেছে। একই সঙ্গে তারা যেন রাজউকের অনুমোদন ছাড়া ভবন নির্মাণ না করে সে বিষয়ে মুচলেকা নেওয়া হয়।

খিলগাঁওয়ে ভবনের নকশাবহির্ভূত অংশ অপসারণ রাজউকের

জোন-৬ এর অথরাইজড অফিসার প্রকৌশলী জোটন দেবনাথ বলেন, রাজউক অনুমোদিত নকশা মেনে ভবন নির্মাণ না করলে এবং রাস্তায় নির্মাণ সামগ্রী রেখে মানুষ চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আমরা প্রতিনিয়ত এসব বিষয়ে নাগরিকদের জানিয়ে আসছি। এতে অনেক মানুষ সচেতনও হচ্ছে। রাস্তা ও ফুটপাতে নির্মাণ সামগ্রী রাখলে সাধারণ মানুষের চলাচলে সমস্যা যেমন হয়, তেমনি অনেক সময় দুর্ঘটনার কারণ হয়ে যায়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন রাজউক জোন-৬ এর পরিচালক সালেহ আহমদ জাকারিয়া, সহকারী অথরাইজড অফিসার প্রকৌশলী সাব্বিরুল ইসলাম, প্রধান ইমারত পরিদর্শক বাসুদেব ভট্টাচার্য ও বেলাল হোসেন, ইমারত পরিদর্শক মো. ফিরোজ আলম, সুমন আহমেদ, মো. সাইফুল ইসলাম, মো. ইমরান শেখ, মো. জিয়াউদ্দিন, বিশ্বজিৎ সিংহসহ রাজউকের অন্য কর্মকর্তারা।

এমএমএ/জেডএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

Related articles

Recent articles

spot_img