15.8 C
New York

কীভাবে বুঝবেন আপনি কেনাকাটায় আসক্ত

Published:

মনোবিজ্ঞানীদের মতে, ‘শপাহোলিক’ মানুষ আসলে একটা রোগে আক্রান্ত, যার আভিধানিক নাম ‘কমপালসিভ বায়িং ডিসঅর্ডার’। কেনাকাটায় নেশাগ্রস্ত মানুষের আচরণে কিছু বিশেষ বৈশিষ্ট্য রয়েছে। আসুন জেনে নিই তেমন সাতটি বৈশিষ্ট্য—

আলমারিভর্তি নতুন জিনিসপত্র

প্রচুর কেনাকাটা করলে এমন অনেক জিনিস আলমারিতে থেকে যায়, যা কেনার পর কখনো ব্যবহার কিংবা প্যাকেট খুলেও দেখা হয় না। যাঁরা কেনাকাটার নেশায় আসক্ত, তাঁদের ক্ষেত্রে এ প্রবণতা অনেক বেশি। ‘শপাহোলিক’দের আলমারি খুললে দেখা যাবে, প্রচুর শপিং ব্যাগ, যার অনেকগুলো খোলা হয়নি মাসের পর মাস।

অপরিকল্পিত কেনাকাটা

প্রয়োজন নেই, এমন সব পণ্য বিরামহীন কিনে চলা ‘শপাহোলিক’ হয়ে ওঠার লক্ষণ। ঘরে একটা আইপড আছে, কিন্তু দোকানের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় অন্য মডেলের একটা আইপড নজর কেড়ে নিল; কিনে ফেললেন। এমন অপ্রয়োজনীয় কেনাকাটা যাঁরা করছেন, তাঁরা আসলে পণ্যের প্রতি একধরনের নেশাগ্রস্ত। যুক্তিহীন কেনাকাটা করে তাঁরা সুখ পান।

হতাশা, একাকিত্ব মোচনে কেনাকাটা

আশপাশে এমন অনেক মানুষ আছে, যারা নানা বিষয়ে হতাশাগ্রস্ত। যেমন ধরুন, নিজের বর্তমান অবস্থা নিয়ে অনেকে সুখী নয়। কেউ আবার ভীষণ একাকী। আত্মবিশ্বাসের অভাব রয়েছে কারও কারও। কেনাকাটায় ডুবে থাকা এসব মানুষের কাছে সমস্যা ভুলে থাকার একটা বড় মারণাস্ত্র। মানুষের একটা বড় অংশ আছে, যারা মন খারাপ থাকলেই কেনাকাটা করতে ভালোবাসেন। আর এভাবেই তারা কমপালসিভ বায়িং ডিসঅর্ডার অসুখে ভোগেন।

Related articles

Recent articles

spot_img