11.2 C
New York

এক দিনে ৫ অনুষ্ঠানে বিএনপির ৫ নেতা যা বললেন

Published:

এত মামলা, এত নির্যাতন পৃথিবীর কোথাও নেই: নজরুল ইসলাম খান

নয়াপল্টনে একটি হোটেলে জিয়া পরিষদের ইফতার অনুষ্ঠানে স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান সরকারের দমন-নির্যাতনের সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, বিএনপির নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে এক লাখ মামলা দেওয়া হয়েছে। এসব মামলায় ৫০ লাখ নেতা-কর্মীকে আসামি করা হয়েছে। পৃথিবীতে অন্য কোনো দেশে বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের নামে এত মামলা নেই, এত নির্যাতন- নিপীড়ন করা হয় না।

সরকার হামলা, মামলা, গুম-খুন করে ক্ষমতায় টিকে আছে বলে মন্তব্য করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে সরকারের সকল কূটকৌশল নস্যাৎ করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করা হবে। ইনশা আল্লাহ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে রাজপথ আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে বিদায় করা হবে। জনগণের রায়ের ভিত্তিতে সরকার গঠন করা হবে।’

নির্বাচনে গিয়েও নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করেছে, তাদের নিয়ে আগামী দিনে আন্দোলনে যাচ্ছি: আমীর খসরু

উত্তরার দিয়াবাড়িতে ওয়ার্ড বিএনপির এক আলোচনা সভায় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে ডাক ছিল নির্বাচন বর্জনের। সেই ডাকে সাড়া দিয়ে ৯৫ ভাগ মানুষ ভোট না দিয়ে নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করেছেন। সেই আন্দোলন এখনো চলছে। দেশের ৯৫ ভাগ মানুষ এই আন্দোলনের অংশ।

আমীর খসরু বলেন, ‘ভোটে ৫ ভাগের মধ্যে জাতীয় পার্টি বলেছে ভোট হয়নি। আওয়ামী লীগের মনোনীত যাঁরা প্রার্থী ছিলেন, যাঁরা হেরে গেছেন, তাঁরাও বলেছেন নির্বাচন হয়নি। ৯৫ ভাগ মানুষের সঙ্গে আরও যারা নির্বাচনে গিয়েও নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করেছে, তাদের নিয়ে আগামী দিনে যে আন্দোলনে যাচ্ছি, সে আন্দোলন ৭ জানুয়ারির থেকে আরও বেশি শক্তিশালী হবে। এ আন্দোলনে বাংলাদেশের মানুষ সম্পৃক্ত হয়েছে, বাংলাদেশের সুশীল সমাজও সম্পৃক্ত হয়েছে।’

উত্তরা পশ্চিম থানার ১ ও ৫১ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির ইফতার ও দোয়া মাহফিল-পূর্ব আলোচনা সভায় ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আনোয়ারুজ্জামান আনোয়ার, সদস্য আফাজ উদ্দীন, হাজী মো. ইউসুফ, এ বি এম এ রাজ্জাকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Related articles

Recent articles

spot_img