4 C
New York

ইসরায়েল নীতি নিয়ে রাজনৈতিকভাবে বেকায়দায় বাইডেন

Published:

তবে মঙ্গলবার বাইডেনের ওই টুইটে ইসরায়েলের প্রতি তাঁর সমর্থন হালকা হয়নি বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। মার্কিন প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের এক কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যম জিউস ইনসাইডারকে বলেন, ‘তিনি (বাইডেন) বোঝাতে চেয়েছেন, অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই অঞ্চলে আমরা শান্তি প্রতিষ্ঠার আশা ত্যাগ করতে পারি না।’

হোয়াইট হাউসের এই বক্তব্য আরও বিভ্রান্তি তৈরি করেছে বলে মনে করেন যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক দল জাস্টিস ডেমোক্র্যাটসের নেতা উসামাহ আন্দ্রাবি। তিনি বলেন, ডেমোক্রেটিক মতাদর্শের লোকজন বাইডেন প্রশাসনের কাছে যুদ্ধবিরোধী ও শান্তির পক্ষের পদক্ষেপ চায়। তবে হোয়াইট হাউস তা সামান্যও করে দেখাতে পারেনি। ডানপন্থীদের চাপের কারণে নিজের ভোটারদের বড় অংশের কাছ থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন বাইডেন।

এদিকে মার্কিন কংগ্রেসে ডেমোক্র্যাট সদস্যরা গাজায় যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানাচ্ছেন। যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক সহায়তা পাওয়ার শর্তে তাঁরা উপত্যকাটি ঘিরে ইসরায়েলের নীতি পরিবর্তনের কথাও বলছেন। দলে বাম ঘরানার অনেকে গাজায় ইসরায়েলের অভিযানে পাশে থাকায় বাইডেনের নিন্দা করেছেন। এতে করে ২০২৪ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে দলের মধ্যে বিভক্তি ঠেকানোর মতো চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ছেন বাইডেন।

এ নিয়ে ওয়াশিংটভিত্তিক গবেষণাপ্রতিষ্ঠান ইথিকস অ্যান্ড পাবলিক পলিসি সেন্টারের গবেষক হেনরি ওলসেন বলেন, যুদ্ধবিরতি ও হামাসকে নির্মূল করা—এ দুয়ের মধ্যবর্তী কোনো অবস্থান নেই। তাই প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে যেকোনো একটি বেছে নিতে হবে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান অবলম্বনে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছেন শেখ নেয়ামত উল্লাহ

Related articles

Recent articles

spot_img