4.9 C
New York

ইজতেমা শুরু হয় যেভাবে | প্রথম আলো

Published:

মাওলানা মুহাম্মদ ইলিয়াস কান্ধলভী (র.) ছিলেন একজন ইসলামি চিন্তাবিদ। তিনি ধর্মীয় শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ লাভ করেছিলেন এই উপমহাদেশের অন্যতম বিদ্যাপীঠ দারুল উলুম দেওবন্দ নামের একটি ইসলামি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে। সাধারণ মানুষের কাছে যা দেওবন্দ নামেই সমধিক পরিচিত। এই প্রতিষ্ঠান খুবই প্রভাবশালী ও নামকরা। বেশির ভাগ কওমি মাদ্রাসাছাত্রই এখান থেকে উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণ করার স্বপ্ন লালন করে থাকে। এমন একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে লেখাপড়া করার মাধ্যমে মাওলানা ইলিয়াস কান্ধলভী (র.) ইসলাম সম্পর্কে বিস্তারিত জ্ঞান লাভ করেন। তারপরই তিনি তাবলিগ জামাত নামের এই আন্দোলনের সূচনা করেন, যা বর্তমানে উপমহাদেশের গণ্ডি পেরিয়ে সমগ্র বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে, বিভিন্ন গবেষণা থেকে দেখা গেছে যে প্রায় ১৬৫টি দেশে তাবলিগ জামাতের কার্যক্রম চালু রয়েছে, যা অভাবনীয় একটি বিষয়।

তাবলিগ জামাত পরবর্তী সময়ে সর্বাধিক পরিচিতি লাভ করে তার বার্ষিক বিশ্ব ইজতেমার মাধ্যমে। বাংলাদেশের ঢাকার তুরাগ নদের তীরবর্তী এলাকাজুড়ে আয়োজিত সেই ইজতেমায় বিভিন্ন দেশ থেকে কয়েক লাখ অংশগ্রহণকারী জমায়েত হয় বলে মনে করা হয়। ইজতেমার কর্মকাণ্ড ধর্মপ্রাণ মানুষের জীবনে নানাবিধ প্রভাব বিস্তার করে থাকে। আবার এই বিপুল অংশগ্রহণকারীর উপস্থিতি এর ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তাকেও বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরে।

তথ্যসূত্র: তাবলিগ জামাত বাংলাদেশও বিশ্ব পরিসরে, বুলবুল সিদ্দিকী, প্রথমা প্রকাশন, ২০১৯

Related articles

Recent articles

spot_img